বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

বুধবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৭, ১২:১৫:১৫

এলিয়েন খুঁজতে অণুবীক্ষণ যন্ত্র

এলিয়েন খুঁজতে অণুবীক্ষণ যন্ত্র

ডেস্ক রির্পোটঃ-পৃথিবীর বাইরে অন্য কোনো গ্রহে জীবনের অস্তিত্ব আছে কিনা তা গবেষণা করে বের করবে- এমন এক অণুবীক্ষণ প্রযুক্তি বানাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি (ক্যালটেক)-এর গবেষকরা।
তাদের বানানো ডিভাইসটির নাম দেওয়া হয়েছে ডিজিটাল হলোগ্রাফিক মাইক্রোস্কোপ। এটি মহাকাশে জীবাণুর সন্ধান করবে, বলা হয়েছে প্রযুক্তি সাইট নেক্সট ওয়েব-এর প্রতিবেদনে।
এর আগে ১৯৭৬ সালে ‘ভাইকিং’ মহাকাশ প্রকল্পে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা সক্রিয়ভাবে পৃথিবীর বাইরে জীবনের সন্ধান চালিয়েছিল। এরপর থেকে এখন পর্যন্ত এই সন্ধান চালানোর সবচেয়ে ভালো উপায় কী হতে পারে তা বিজ্ঞানী সম্প্রদায় স্পষ্ট করে বলেনি। যদিও, অন্য কোনো গ্রহে পানির সন্ধানে অর্থ ও সময় ব্যয় করা হয়েছে। পানির সন্ধানের ক্ষেত্রে সমস্যা হচ্ছে এর ভেতরে আসলে কী আছে সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া।
জীবিত কোনো প্রাণিকে পাঠানোর মাধ্যমে এ গবেষণা করতে গেলে, তা আর ফিরে আসবে কিনা তা নিশ্চিত করার কোনো উপায় নেই। মহাকাশে পাওয়া নমুনাগুলো নিয়ে পরীক্ষা চালাতে বিজ্ঞানীদের হাতে প্রচলিত অণুবীক্ষণ যন্ত্র ব্যবহারের কোনো সুযোগ নেই।
এই ডিভাইসে কোনো বস্তুকে বড় করে দেখাতে লেন্স ব্যবহারের প্রচলিত কৌশল ব্যবহার করা হয়নি। এতে লেজার ব্যবহার করা হয়েছে, যা অণুবীক্ষণিক উপাদানগুলোর ৩ডি নড়াচড়া প্রদর্শন করবে। তারপর এই নড়াচড়া কোনো জড়বস্তুর নাকি কোনো জীবের তা নিয়ে বিশ্লেষণ চালানো হবে।
এই ডিভাইসের নড়াচড়া করার মতো কোনো অংশ নেই। গবেষকদের বিশেষ নজরে আছে শনির একটি উপগ্রহ- এনসেলাডাস। এই উপগ্রহের একটি বরফের শেল আছে, এর উষ্ণপ্রস্রবণের মাধ্যমে মহাকাশে বাষ্প ছাড়া হয়। মহাকাশে ক্ষুদ্র অঙ্গাণু থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। ক্যালটেক যে ডিজিটাল হলোগ্রাফিক মাইক্রোস্কোপ বানাচ্ছে, তা এনসেলাডাস থেকে ছাড়া বাষ্পে কোনো জীবাণুর অস্তিত্ব আছে কিনা তা খুঁজে বের করবে।
বিজ্ঞানীরা উত্তর মেরুতে এই ডিভাইসের পরীক্ষা চালিয়েছেন। এখন তারা দক্ষিণ মেরুর আরও কঠিন পরিবেশে পরীক্ষা চালানোর পরিকল্পনা করছেন। ক্যালটেক-এর অধ্যাপক জেয় নাদিয়াও বলেন, আমরা এমন একটি অণুবীক্ষণ যন্ত্র বানানোর চেষ্টা করছি যা পৃথিবীর সবখানে জীবনের সন্ধান করতে আমাদের সক্ষমতা সর্বোচ্চ করবে। কারণ যদি আমরা পৃথিবীর সম্ভাব্য সব কঠিন পরিবেশে জীবনের সন্ধান চালাতে আমাদের সক্ষমতা সর্বোচ্চ করতে পারি তাহলে আমরা অন্যান্য গ্রহে তা সন্ধানে যতোটা সম্ভব কাছাকাছি যেতে পারব।

এই বিভাগের আরও খবর

  মাতৃভাষার পাঠ্য বই এখনো পাইনি জুরাছড়ি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি'র শিশুরা

  জুরাছড়িতে কৈশোরকালীন প্রজনন স্বাস্থ্য-পুষ্টি বিষয়ক অবহিতকরণ কর্মশালা

  রাঙ্গামাটি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আল্পনা কর্মসূচী

  রাঙ্গামাটির ওয়াপদা কলোনীতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে জেলা বিএনপি খাবার বিতরণ

  শিক্ষার মান উন্নয়নে কর্ণফুলী কলেজে মতবিনিময় সভা

  রাঙ্গামাটি শহরের তবলছড়িতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে প্রায় ৪০টি বসতবাড়ী সম্পূর্ণ ভষ্মিভূত, অর্ধকোটি টাকা ক্ষয় ক্ষতি, আহত-৩

  কাপ্তাই শিশু নিকেতন স্কুলে চলচ্চিত্র প্রদর্শন ও কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

  শিল্পকলা একাডেমি বাংলাদেশের শিল্প সংস্কৃতি বিকাশের একমাত্র জাতীয় প্রতিষ্ঠান-বৃষ কেতু চাকমা

  চাকমা রাণী য়েন য়েন-এর উপর হামলার প্রতিবাদে রাঙ্গামাটিতে সংহতি সমাবেশ

  ৭ মাসের মধ্যে কাপ্তাই সোলার পাওয়ার প্ল্যান্ট প্রজেক্টের কাজ সম্পন্ন হবে

  চুক্তির নির্দেশনা অনুযায়ী আমাদের সেভাবে কাজ করে যেতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘খালেদা জিয়ার রায়ের মাধ্যমে রাজনৈতিক সংকট ঘনীভূত হবে না বরং বিএনপির অভ্যন্তরীণ সংকট ঘনীভূত হবে।’ আপনি কি তাই মনে করেন?