পর্যটকশূন্য কক্সবাজার

image_39254_0কক্সবাজার:- ঈদ-উল-ফিতরেও পর্যটকশূন্য বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার। জামায়াতের ডাকা টানা ৪৮ ঘণ্টার হরতালের কারণে এবারের ঈদে পর্যটন নগরীতে আসেনি পর্যটকরা। ফলে কক্সবাজারের পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা চরম হতাশায় ভুগছেন।
প্রতিবছর হাজার হাজার দেশি-বিদেশি পর্যটকে মুখরিত থাকে দেশের অন্যতম পর্যটনকেন্দ্র কক্সবাজার। কিন্তু এবার এ সমুদ্র সৈকতে পর্যটক নেই বললেই চলে। ঈদের সময়ে কক্সবাজারে প্রায় দেড় লাখ পর্যটক বেড়াতে আসেন। কিন্তু এবার পর্যটকশূন্যতার কারণে পর্যটন ব্যবসায়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত প্রায় সবাই বিপাকে পড়বেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।
পর্যটন ব্যবসায়ের সঙ্গে জড়িতদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ঈদ উপলক্ষে এবারো প্রায় ৪০০ হোটেল-মোটেল ও গেস্টহাউস অনেক আগেই অগ্রিম বুকিং হয়ে যায়। কিন্তু হুট করে জামায়াতের হরতাল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গেই পরিস্থিতি পাল্টে যায়। পর্যটকরা তাদের আসা-যাওয়ার ব্যাপারে নিরাপত্তাহীনতার অজুহাত দেখিয়ে বুকিং বাতিল করতে শুরু করেন। এতে হতাশ হয়ে পড়েন পর্যটন ব্যবসায়ের সঙ্গে জড়িত সবাই।
কক্সবাজারের জনৈক হোটেল ব্যবসায়ী জানান, জামায়াতের ডাকা হরতালের কারণে কক্সবাজার মনে হয় এবার পর্যটকশূন্যই থাকবে। আমাদের প্রায় ৬০ ভাগ রিজার্ভেশন বাতিল করতে হয়েছে।
সৈকতের একজন তৃণমূল পর্যটন ব্যবসায়ী জানান, ঈদগুলোই আমাদের ব্যবসায়ের অন্যতম মৌসুম। সারা বছর আমরা ঈদের জন্যই অপেক্ষায় থাকি। ঈদ উপলক্ষে আমাদের যার যার সামর্থ অনুযায়ী পুঁজি বিনিয়োগ করি।
বিরূপ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সৈকতের চটপটি ব্যবসায়ীরাও। তারা বলছেন, জামায়াতের হরতাল আহ্বান তাদের পেটে লাথি মেরেছে। তারা কীভাবে এ ক্ষতি থেকে নিজেদের রক্ষা করবেন ভেবে পাচ্ছেন না।

Print Friendly